শিরোনাম:
ফরিদগঞ্জে কুকুরের কামড়ে আহত ২০ কচুয়ায় মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার মেঘনায় কার্গোর ধাক্কায় তলা ফেটেছে সুন্দরবন -১৬ লঞ্চের, নারী নিখোঁজ ষোলঘর আদর্শ উবি’র ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অ্যাডঃ হুমায়ূন কবির সুমন কচুয়ায় নবযোগদানকৃত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে শিক্ষক সমিতি শুভেচ্ছা মতলব উত্তরে লেপ-তোশক তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে কারিগররা উপাদী উত্তর ইউনিয়নে দীপু চৌধুরীর স্মরণে মিলাদ ও দোয়া পশ্চিম সকদী ডিবি উচ্চ বিদ্যালয়ে নবগঠিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহন মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে তলিয়ে গেছে এক যুবক ফরিদগঞ্জের ঘনিয়া দরবার শরীফের পীরের সঙ্গে ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভুঁইয়ার সাক্ষাৎ

নির্মাণ সম্পন্ন হতেই ভেঙে পড়েছে সরকারি অর্থে নির্মিত মাদ্রাসার পুকুর ঘাটলা

reporter / ৯৭ ভিউ
আপডেট : বুধবার, ১০ মে, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
নির্মাণকাজ সম্পন্ন হতেই ভেঙ্গে পড়েছে ২লক্ষ টাকা ব্যায় সরকারি অর্থে নির্মিত একটি মাদ্রাসার পুকুর ঘাটলা। এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে ঠিকাদার কর্তৃক রাতের আধারে ধসেপড়া পুকুর ঘাটলার রড়, ইট-কংক্রিটসহ অন্যান্য আলামত সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটে চাঁদপুর মতলব দক্ষিণ উপজেলার পূর্ব ধলাইতলী গ্রামে। গত বৃহস্পতিবার রাতে সিঁড়ি ঢালাই দেয়ার পর সম্পূর্ণ ঘাটলাটি মাটিতে ধসে পড়ে। এলাকাবাসীর দাবী রাতের আঁধারে তড়িঘড়ি করে নিম্নমানের কাজের কারণে পুকুর ঘাটলাটি সম্পূর্ণ ধসে পড়েছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকাবাসীর মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, পূর্ব ধলাইতলি দাখিল মাদ্রাসার জন্য পাশ্ববর্তী একটি পুকুরে পাকা ঘাটলা নির্মাণে উপজেলা পরিষদ কর্তৃক এডিবি প্রকল্পের আওতায় দুই লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। এটির নির্মাণের জন্য কাজটি পান ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মনির হোসেন বকাউল।

এদিকে পাকা ঘাতলা নির্মাণে স্বচ্ছতা বজায় রাখার স্বার্থে একটি কমিটি করে দেওয়া হয়। ওই কমিটির সভাপতি করা হয় স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার সোহেল হোসেন রিয়াদ এবং সেক্রেটারি করা হয় ঠিকাদার তথা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন বকাউলকে। এই কমিটির অন্য ৩ সদস্য হলেন, মাসুদ পারভেজ, মাওলানা জয়নাল আবদীন ও বাবুল মেম্বার।

গত বৃহস্পতিবার রাতে তড়িঘড়ি করে নির্মাণাধীন পুকুর ঘাটলার সিঁড়ির ঢালাই দেওয়া হয়। ঢালাই কাজ সম্পন্ন হওয়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যে হঠাৎ বিকট শব্দে পুরো ঘাটলাটি ধ্বসে পড়ে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন এলাকাবাসী জানান, পুকুর ঘাটলা ভেঙে পড়ার খবর পেয়ে ঠিকাদার মনির হোসেন বকাউল ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। তাৎক্ষণিক ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে তিনি লোকজন নিয়ে ধসে পড়া ইট,কংক্রিট এবং রড সিমেন্ট গুলো সরিয়ে ফেলেন।

ক্ষুব্দ এলাকাবাসী জানান, ঘাটলা নির্মাণ ব্যাপক দুর্নীতি এবং অনিয়ম করা হয়েছে। সিমেন্ট কম দেওয়ার পাশাপাশি ব্যবহার করা হয়েছে পুরাতন রড। প্রতিটি পিলারে সাধারণত ৪টি করে রড দেওয়া কথা থাকলেও কোন কোন পিলারে ১/টি ২টি করে রট দেয়া হয়েছে। রাতের অন্ধকারে কাজ করায় আমাদের সন্দেহ সিঁড়িতে রডের পরিবর্তে হয়তো বাঁশের কঞ্চি ব্যবহার করা হয়েছে। যার ফলে ঢালাই করার কয়েক ঘন্টার মধ্যে পুরো ঘাটলা ধ্বসে পড়েছে।

এ বিষয়ে পুকুর ঘাটলা নির্মাণ কমিটির সভাপতি ও স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার সোহেল হোসেন রিয়াদ বলেন, আমি এ কাজের সম্পর্কে খুব বেশি কিছু জানিনা। আমাদের ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাহেব আমাকে সভাপতি বানিয়ে দিয়েছেন। যে রাতে সিড়িগুলো ঢালাই দেওয়া হয়, তখন আমি সেখানে ছিলাম না। রাতে সিঁড়ি ঢালাই করা হলো কেন সেটি নিও আমি প্রশ্ন তুলেছি। পুকুর ঘাটলা নির্মাণে কোন অনিয়ম ছিল কিনা সেটি ঠিকাদার ভালো জানেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মনির হোসেন বকাউল বলেন, ঘাটলাটি আমি পরিমান মত সবই দিয়েছি কিন্তু কেন ধসে পড়েছে আমি জানিনা, এটা আমার কপালে নেই। ভাগ্য  খারাপ, এছাড়া আমি আর কিছু বলতে চাই না।

ঘাটলা ধসে পড়ার বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা বলেন, কাজে অনিয়ম হয়েছে তাই তো ঘাটলা ধসে পড়েছে। আপনারা নিউজ করেন। এবং বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দেন।

এ বিষয়ে মতলব দক্ষিণ উপজেলা এলজিইডির কার্যালয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী জাকির হোসেন বলেন, ঘাটলা ধসে পড়েছে এই বিষয়টি আমি অবগত নই। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।


এই বিভাগের আরও খবর