শিরোনাম:
ফরিদগঞ্জে কুকুরের কামড়ে আহত ২০ কচুয়ায় মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার মেঘনায় কার্গোর ধাক্কায় তলা ফেটেছে সুন্দরবন -১৬ লঞ্চের, নারী নিখোঁজ ষোলঘর আদর্শ উবি’র ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অ্যাডঃ হুমায়ূন কবির সুমন কচুয়ায় নবযোগদানকৃত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে শিক্ষক সমিতি শুভেচ্ছা মতলব উত্তরে লেপ-তোশক তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে কারিগররা উপাদী উত্তর ইউনিয়নে দীপু চৌধুরীর স্মরণে মিলাদ ও দোয়া পশ্চিম সকদী ডিবি উচ্চ বিদ্যালয়ে নবগঠিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহন মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে তলিয়ে গেছে এক যুবক ফরিদগঞ্জের ঘনিয়া দরবার শরীফের পীরের সঙ্গে ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভুঁইয়ার সাক্ষাৎ

মতলবের নেছার আড়ং বাজারে দোকানে হামলা ভাংচুর লুটপাট আহত এক

reporter / ১২৯ ভিউ
আপডেট : মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২

মতলব দক্ষিণ প্রতিনিধিঃ 
 মতলবের নেছার আড়ং বাজারের রাসেদ ইষ্টিল এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়াকসপের মালিকের কাছ থেকে চাঁদা না পেয়ে সন্ত্রাসী হামলা চলিয়ে দোকানের মালামাল ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার উপাদী উত্তর ইউনিয়নের নেছারআড়ং বাজারে।
জানাযায় ১৩ মে শুক্রবার সকাল ১১টার সময়  মতলব দক্ষিন উপজেলার উপাদী উত্তর ইউনিয়নের নেছারআড়ং বাজারের ব্যবসায়ী সোবহানের কাছ থেকে বেশ কিছু দিন যাবত জমি কিনা বাবদ এক লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিল বহরী গ্রামের মৃত ফজলুল হকের ছেলে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী জহির। ঘটনার দিন সকালে তুচ্ছ ধটনাকে কেন্দ্র করে  জহির  সোবহানের সাথে ঝগরায় জরিয়ে পরে। এ সময় বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক রিপনসহ লোকজন জহিরকে নিয়ে। পরে জহির ও তার ভাই কাইয়ুৃমসহ ৫-৬ জন দোকানে এসে সোবানকে মারধর ও হামলা চালায়। এ সময় দোকানের মালামাল ও ক্যাশে থাকা  লক্ষাধিক টাকা লুটকরে নিয়ে যায়।
এরই সুত্র ধরে বিকাল সারে ৫ টায় সোবাহানের ছোট ভাই আলআমিন বাড়ী যাওয়ার সময় জহিরের বাড়ীর সামনে জহির তার ভাই কাইয়ুম ভাতিজা কবির ও ভাগিনা হৃদয় তাকে মারধর করে রক্তাক্ত যখম করে রাস্তায় ফেলে রাখে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে মতলব দক্ষিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
এ বিষয়ে সোবাহান বলেন আমি একটি জমি কিনতে চাইলে জহির আমার কাছে এক লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেন এ বিষয়ে ওর সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এরই সুত্র ধরে সে আমার দোকানে এসে হামলা চালায় সে এলাকার একজন  চিহৃিত মাদক ব্যবসায়ী তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকার লোকজন তাদের ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খোলে না। এ বিষয়ে আমি প্রশাসনে সুদৃষ্টি কামনা করছি।
ঘটনার পরে সোবহান ৯৯৯ কল করলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এসআই রফিক এ ঘটনায় মতলব দক্ষিন থানায় মামলার প্রস্তুুতি চলছে।
এ ঘটনায় জহির বলেন সকালে আমি সামনে দিয়ে  যাওয়ার সময় দোকানের সামনে একটি লোহার এঙ্গেল দেখে সরাতে বলি এ নিয়ে সোবাহানের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। ভাংচুর ও মারধর  করা হয়নি।


এই বিভাগের আরও খবর