মতলব উত্তরে মানষিক প্রতিবন্ধী শিল্পী আক্তার ২৫ বছর ধরে বন্দী অবস্থায় জীবন-জাপন করছে

reporter / ১১৩ ভিউ
আপডেট : মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল, ২০২২

মতলব উত্তর প্রতিনিধি :
কখনো হাতে কখনো বা পায়ে বেধে রাখা হয় শিল্পী আক্তার (৩২) নামে এক প্রতিবন্ধীকে। দিনে বাড়িতে গাছের সাথে আর রাতে ঘরে চৌকির সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়।  দুই যুগের বেশি বাঁধা মানসিক প্রতিবন্ধী  শিল্পীর জীবন।চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়নের উত্তর লুধুয়া গ্রামের মৃত জোহর আলীর মেয়ে।
জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে বাড়ির পাশে গাছের সঙ্গে  বেধেঁ রাখা হয় শিল্পীকে।
শিল্পীর বাবা মা কেউ বেচে নেই।  আছে সৎ মা আর ৪ ভাই ২ বোন। ভাইদের মধ্য কেউ মামার বাড়িতে আর কেউবা শশুর বাড়িতে থাকে। কেউ রিকশা চালায় আর কেউ কাঠ মিস্ত্রির কাজ করে।
বড় ভাই লিটন জানান, জন্মের পর হঠাৎ প্রতিবন্ধীর মতো হয়ে পড়ে শিল্পী। যখন বাবা ছিল তখন স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক ও কবিরাজ দিয়ে তাকে চিকিৎসা করানো হয় কিন্তু সুস্থ হয়নি। ক্রমেই মানসিক প্রতিবন্ধী হয়ে পড়ে। সুযোগ পেলেই এদিক-সেদিক চলে যায়। এজন্য বাধ্য হয়ে আটকে রাখা হয়।
তিনি আরও জানান, অভাবের সংসারে তিনিই একমাত্র উর্পাজনের উৎস। ভাইয়েরা বিয়ে করে আলাদা সংসার করছে। শিল্পীকে নিয়ে কষ্টে দিনজাপন করছি। সহযোগীতার মধ্যে একটি ভাতা কার্ড করে দেওয়া হয়েছে। সেই টাকা দিয়ে তার বরন পোষণ হয়না।
প্রতিবেশীরা  বলেন, শিল্পীর বাবা মা নাই। সে অসহায়।অর্থের অভাবে তার চিকিৎসাও হয়নি। চিকিৎসা করাতে পারলে সে হয়তো সুস্থ হয়ে উঠতে পারতো।


এই বিভাগের আরও খবর