শিরোনাম:
ফরিদগঞ্জে কুকুরের কামড়ে আহত ২০ কচুয়ায় মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার মেঘনায় কার্গোর ধাক্কায় তলা ফেটেছে সুন্দরবন -১৬ লঞ্চের, নারী নিখোঁজ ষোলঘর আদর্শ উবি’র ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অ্যাডঃ হুমায়ূন কবির সুমন কচুয়ায় নবযোগদানকৃত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে শিক্ষক সমিতি শুভেচ্ছা মতলব উত্তরে লেপ-তোশক তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে কারিগররা উপাদী উত্তর ইউনিয়নে দীপু চৌধুরীর স্মরণে মিলাদ ও দোয়া পশ্চিম সকদী ডিবি উচ্চ বিদ্যালয়ে নবগঠিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহন মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে তলিয়ে গেছে এক যুবক ফরিদগঞ্জের ঘনিয়া দরবার শরীফের পীরের সঙ্গে ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভুঁইয়ার সাক্ষাৎ

লেকে খড়া, নৌকা ডাঙ্গায়!

reporter / ২৪৯ ভিউ
আপডেট : শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২৩

ঈদের ছুটিতে হতাশ সোনারগাঁ জাদুঘরে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা
মাহবুব আলম প্রিয়ঃ
ঈদের ছুটি আর বৈশাখী মেলা ঘুরতে সোনারগাঁ জাদুঘরে ভির করছেন দর্শনার্থীরা। তবে অনাবৃষ্টির কারনে সৃষ্ট খড়ায় শুকিয়ে যাওয়া লেকে নৌকায় চড়তে না পেরে হতাশা প্রকাশ করেছেন আগত দর্শনার্থীরা।  এমন চিত্র নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের লোক ও কারুশিল্প যাদুঘরের। মাহে রমজান শেষে  পবিত্র ঈদুল ফিতরের পরদিন থেকে  সোনারগাঁ জাদুঘর দেখতে আসছেন বিভিন্ন জেলার মানুষ। ঈদের ছুটির অবসরে পরিবার নিয়ে দিনব্যাপী তারা ঘুরে বেড়াচ্ছেন যাদুঘর প্রাঙ্গণ।
বৃহস্পতিবার  (২৭ এপ্রিল)  ঈদের ৫ম  দিন সকাল থেকে দর্শনার্থী, পর্যটকদের জাদুঘরে আসতে দেখা গেছে। ঈদের ছুটিতে তাদের এ ঘুরে বেড়ানোকে নিরাপদ করতে বাড়তি দায়িত্ব পালন করছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। তবে লেক ও পুকুর শুকিয়ে নৌকাগুলো ডাঙ্গায় অলস বাঁধার দৃশ্য হতাশ করেছে আগত দর্শনার্থীদের।
যাদুঘরে ঘুরতে রূপগঞ্জের মধুখালীর বাসিন্দা মাহিরা তাসফি প্রভা বলেন,  পরিবার নিয়ে সারাদিনের জন্য এখানে ঘুরতে এসেছি। জাদুঘর দেখেছি। এর আগে এসে নৌকায় চড়েছি। এবার দেখলাম পুরো লেক আর পুকুর শুকিয়ে গেছে। এতে হতাশ হয়েছি। তবে জাদুঘর এলাকার খাবারের দোকানগুলোতে সুযোগ বুঝে অতিরিক্ত মূল্য আদায় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
এসব বিষয়ে জানতে চাইলে সোনারগাঁও লোক ও কারু শিল্প ফাউন্ডেশনের মহা পরিচালক এসএম রেজাউল করিম বলেন, আগত দর্শনার্থীদের নিরাপত্তায়
জেলা ট্যুরিস্ট পুলিশ ও সোনারগাঁও থানা পুলিশ কাজ করছে। অভ্যন্তরীন খাবারের দাম বেশি রাখার অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেব। তবে সাম্প্রতিক খড়ায় লেক শুকিয়ে গেছে। ফলে নৌকায় বিনোদন বন্ধ রয়েছে। পানি সংরক্ষণ বিষয়ে আলাপ আলোচনা চলছে। কৃত্রিমভাবে পানি রাখার ব্যবস্থা হলে এ সমস্যা তৈরী হবে না।
যাদুঘরে ঘুরতে আসা শিক্ষার্থী হুজাইফা বলেন, এখানে ঘুরতে আসা সবার নিরাপত্তা আছে। কিন্তু লেক নৌকা চড়ার মজা থেকে বঞ্চিত হলাম। যাতে  বিরক্ত ও বিব্রত হয়েছি।
অপর দর্শনার্থী হাসনে হেনা বলেন, খড়া থাকাতে অভ্যন্তরীণ পরিবেশেও প্রভাব পড়েছে। পর্যাপ্ত বসার জায়গা নেই। তাই সরকারীভাবে বসার ব্যবস্থা ও ছাউনি করলে দর্শনার্থীদের আরাম হতো।


এই বিভাগের আরও খবর