শিরোনাম:
ফরিদগঞ্জে কুকুরের কামড়ে আহত ২০ কচুয়ায় মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার মেঘনায় কার্গোর ধাক্কায় তলা ফেটেছে সুন্দরবন -১৬ লঞ্চের, নারী নিখোঁজ ষোলঘর আদর্শ উবি’র ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অ্যাডঃ হুমায়ূন কবির সুমন কচুয়ায় নবযোগদানকৃত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে শিক্ষক সমিতি শুভেচ্ছা মতলব উত্তরে লেপ-তোশক তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে কারিগররা উপাদী উত্তর ইউনিয়নে দীপু চৌধুরীর স্মরণে মিলাদ ও দোয়া পশ্চিম সকদী ডিবি উচ্চ বিদ্যালয়ে নবগঠিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহন মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে তলিয়ে গেছে এক যুবক ফরিদগঞ্জের ঘনিয়া দরবার শরীফের পীরের সঙ্গে ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভুঁইয়ার সাক্ষাৎ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন -২০২৪-

দলীয় মনোনয়ন জমা দিলে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়া যাবে না

reporter / ৩৭৩ ভিউ
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২৩

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দলগুলো এক আসনের বিপরীতে একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন দিতে পারবে, তবে দলীয়ভাবে কেউ যদি একবার মনোনয়ন জমা দিয়ে দেয় তাহলে আর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে পারবেন না।

মনোনয়ন প্রত্যাহারের আগে দল বা জোট যাকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেবে, কেবল তিনিই প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন। ওই আসনে দলের বা জোটের অন্য প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র স্বয়ংক্রিয়ভাবেই বাতিল হবে। এর ফলে দলীয়ভাবে মনোনয়ন জমাকারীদের কারও আর বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ার সুযোগ নেই।

এ ক্ষেত্রে কেউ যদি নির্বাচন করতে চায় তাহলে আগে থেকেই দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে স্বতন্ত্র হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিতে হবে। নির্বাচন কমিশন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

ইসির সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের ক্ষমতা প্রার্থী বা তার এজেন্টের হাতেই ছিল। ফলে দল বা জোট কাউকে চূড়ান্ত মনোনয়ন না দিলেও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারতেন। কিন্তু বিগত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ সংশোধন করে ১২ ধারা ৩ এ(বি) এবং ১৬ ধারা (২) তে রাজনৈতিক দলগুলোকে প্রার্থী চূড়ান্তকরণের এই ক্ষমতা দেওয়া হয়।

আরপিওর ১২ ধারার ৩এ (বি)-তে আগে ছিল, নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের পক্ষে সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক বা সমপর্যায়ের পদাধিকার স্বাক্ষরিত এই মর্মে একটি প্রত্যয়নপত্র যে, প্রার্থীকে ওই দলের পক্ষ থেকে মনোনয়ন প্রদান করা হয়েছে। তবে শর্ত থাকে যে, কোনো নিবন্ধিত দলের পক্ষ থেকে প্রাথমিকভাবে একাধিক প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়া যাবে। একের অধিক প্রার্থীকে মনোনয়ন করা হলে মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের পূর্বেই চূড়ান্তভাবে একজন মনোনীত প্রার্থীর নাম রিটার্নিং অফিসারকে লিখিতভাবে জানাতে হবে। কিন্তু ২০১৩ সালে বিগত কমিশন এই ধারায় সংশোধনী আনে।

বর্তমানে এই ধারায় উল্লেখ আছে, কোনো নিবন্ধিত দলের পক্ষ থেকে প্রাথমিকভাবে একাধিক প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়া যাবে। একের অধিক প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়া হলে তা ১৬(২) ধারা অনুযায়ী কার্যকর হবে।

১৬(২) ধারায় বলা আছে, যদি কোনো আসনে একের অধিক প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়া হয়, তার মধ্যে থেকে একজনকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আগেই চূড়ান্ত করতে হবে। তা নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বা সমপর্যায়ের কেউ লিখিতভাবে রিটার্নিং অফিসারকে জানাবেন। দলের অন্য মনোনীত প্রার্থীদের প্রার্থিতা স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাতিল হয়ে যাবে।

তবে স্বতন্ত্রভাবে কেউ প্রার্থী হতে চাইলে আগেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সংশ্লিষ্ট আসনের ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর সংযুক্ত করতে হবে। প্রার্থী সাবেক এমপি হলে ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর লাগবে না। তফশিল অনুযায়ী, আগামী ৩০ নভেম্বর মনোনয়ন দাখিলের শেষ সময়। এর মধ্যে রাজনৈতিক দলগুলো একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন দিতে পারবে। তবে বাছাইকালে কারো প্রার্থিতা বাতিল হয়ে গেলেও অন্যদের মধ্যে থেকে ১৮ ডিসেম্বর প্রত্যাহারের আগে এক জনকে চূড়ান্ত করার সুযোগ পাবে দলগুলো।


এই বিভাগের আরও খবর