শিরোনাম:
ফরিদগঞ্জে কুকুরের কামড়ে আহত ২০ কচুয়ায় মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার মেঘনায় কার্গোর ধাক্কায় তলা ফেটেছে সুন্দরবন -১৬ লঞ্চের, নারী নিখোঁজ ষোলঘর আদর্শ উবি’র ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অ্যাডঃ হুমায়ূন কবির সুমন কচুয়ায় নবযোগদানকৃত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে শিক্ষক সমিতি শুভেচ্ছা মতলব উত্তরে লেপ-তোশক তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে কারিগররা উপাদী উত্তর ইউনিয়নে দীপু চৌধুরীর স্মরণে মিলাদ ও দোয়া পশ্চিম সকদী ডিবি উচ্চ বিদ্যালয়ে নবগঠিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহন মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে তলিয়ে গেছে এক যুবক ফরিদগঞ্জের ঘনিয়া দরবার শরীফের পীরের সঙ্গে ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভুঁইয়ার সাক্ষাৎ

মহাশশ্মান মন্দির ও হরিবোলা সমিতির আয়োজনে  কার্তিক সাহার স্মরণসভা  

reporter / ৮৮ ভিউ
আপডেট : শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
 চাঁদপুর মহাশশ্মান মন্দির কমপ্লেক্স ও হরিবোলা সমিতির আয়োজনে কার্তিক সাহার স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকাল ৪ টায় চাঁদপুর মহাশ্মশানের মিলনায়তনে হরিবালা সমিতির সভাপতি অজয় ভৌমিকের সভাপতিত্বে ও জয় রাম রায়ের পরিচালনায় স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।  শুরুতে গীতা পাঠ করেন সন্তুষ চন্দ্র দাস ।
বক্তারা বলেন, কার্তিক সাহা চলে গেছেন আমাদের  ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান গুলো অভিভাবক হীন হয়ে পরেছে। তার চলে যাওয়ায় আমাদের হৃদয়ে কাকুতির স্পন্দন জাগায়। কার্তিক সাহা চাঁদপুরের বিভিন্ন মন্দিরে সহায়তা করে গেছেন। কখনো তিনি বলতেন না কি সহায়তা করবেন। আমরা কার্তিক সাহার প্রতি চীরকৃতঞ্জ থাকবো।তার পরিবারর প্রতি সমবেদনা জানাই। জম্মিলে মরিতে হবে ভুবনে এটাই চীর সত্য। এমন কিছু মৃত্যু আছে যা মানুষ কে কাঁদায়, আবার কিছু মৃত্যু মানুষকে হাসায়। কার্তিক সাহার মৃত্যুতে পুরো শহরে শোক বয়ে আসে। তিনি হিন্দু – মুসলিম সকল ধর্মের মানুষের কাছে নিবির সম্পর্ক ছিল। তার প্রমান চাঁদপুরবাসী দিয়েছে। কার্তিক সাহা ব্যবসায়ি হিসেবর যা অর্জন করছেন তা বুঝাবার নয়। তার পরিকল্পনা ছিল ব্যবসায় লাভবান হলে তিনি চার আনা নিজের সন্তারের জন্য রেখে বাকিটা দান করতেন। তিনি বলতেন আমার যদি ভুল হয় ডাক দিবেন। কার্তিক সাহা উদার মনের মানুষ ছিলেন। তার নিজ বাড়িতে অনুকুল ঠাকুরের মন্দির করবেন,সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ নিরসন করে মন্দির করেন। তিনি অসুস্হ্য হলে বলতেন ঠাকুর আমি মন্দিরের কাজটা করতে পারিনাই।ঠাকুর  আমাকে সুস্হ্য করে দাও আমি মন্দিরের কাজটা করবো এমন কথা বলতেন কার্তিক সাহা। কার্তিক সাহা জীবনে যা আয় করেছেন তা মন্দিরে মন্দিরে সহায়তা করে গেছেন। ৮ ফেব্রুয়ারী কার্তিক সাহার শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠিত হবে সেখানে সবাই অংশ গ্রহন করার জন্য অনুরোধ করা হয়।
জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়,জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তমাল কুমার ঘোষ,জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি সন্তুষ দাস, জেলা যুবলীগ সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সালাহ উদ্দিন মোঃ বাবর, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খিস্ট্রান ঐক্য পরিষদ সভাপতি অ্যাডঃ বিনয় ভূষণ মজুমদার, সাধারন সম্পাদক অ্যাডঃরনজিত রায় চৌধুরী,পুরান বাজার রাম ঠাকুর দোল মন্দির কমিটির  সভাপতি  পরেশ মালাকার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি তপন সরকার, নির্মল পাল,সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক  লক্ষ্মন চন্দ্র সূত্রধর, সহ সভাপতি বিমল চৌধুরী, তমাল ভৌমিক, তম্ময় বণিক, রনজিত সাহা মুন্না প্রমুখ।


এই বিভাগের আরও খবর