শিরোনাম:
ফরিদগঞ্জে কুকুরের কামড়ে আহত ২০ কচুয়ায় মাদক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার মেঘনায় কার্গোর ধাক্কায় তলা ফেটেছে সুন্দরবন -১৬ লঞ্চের, নারী নিখোঁজ ষোলঘর আদর্শ উবি’র ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অ্যাডঃ হুমায়ূন কবির সুমন কচুয়ায় নবযোগদানকৃত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে শিক্ষক সমিতি শুভেচ্ছা মতলব উত্তরে লেপ-তোশক তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে কারিগররা উপাদী উত্তর ইউনিয়নে দীপু চৌধুরীর স্মরণে মিলাদ ও দোয়া পশ্চিম সকদী ডিবি উচ্চ বিদ্যালয়ে নবগঠিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহন মেঘনা নদীতে গোসল করতে গিয়ে তলিয়ে গেছে এক যুবক ফরিদগঞ্জের ঘনিয়া দরবার শরীফের পীরের সঙ্গে ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভুঁইয়ার সাক্ষাৎ

মতলব দক্ষিণে ফিরোজা বেগম উবি’তে নিয়োগে অনিয়ম : সভাপতি জেল হাজতে

reporter / ৩৫০ ভিউ
আপডেট : মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২৩

মতলব দক্ষিণ উপজেলার লাকশিবপুর ফিরোজা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়োগ বানিজ্যে অনিয়মের অভিযোগে এক পরীক্ষার্থীর করা মামলায় বিদ্যালয়ের সভাপতি আবুল খায়েরকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন আদালত । এ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী, কম্পিউটার ল্যাব সহকারী, নৈশপ্রহরী ও পরিচ্ছন্নতাকর্মী পদে নিয়োগে বানিজ্য ও অনিয়মের অভিযোগে পরীক্ষার্থী কাউসার আলম বিদ্যালয়ের সভাপতি আবুল খায়ের ও প্রধান শিক্ষক নাসির উদ্দিনের বিরুদ্ধে মতলব দক্ষিণ আমলী আদালতে মামলা দায়ের করেন ।

গত ১৫ অক্টোবর আদালতে ভুক্তভোগী পরীক্ষার্থীর করা মামলায় আত্মসমর্পণ করলে লাকশিবপুর ফিরোজা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যাবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মোঃ আবুল খায়েরকে আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরন করেন ।

এ ছাড়াও বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির ৪ অভিভাবক সদস্য গত ২ ফেব্রুয়ারী অনিয়ম ও আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ এনে বিদ্যালয়ের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ ছাড়াও ১২ ফেব্রুয়ারী পরীক্ষার্থী কাউসার আলম আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। যা ডিবি তদন্ত করছেন ।

তদন্তে ৪জন অভিভাবক সদস্যের মধ্যে অনুপস্থিত ছিলেন শরিফ হোসেন ও মহিলা সদস্য মৌসুমী আক্তার । অভিযোগ পত্রে অভিযোগকারী গাজী খোরশেদ আলমের সাক্ষর জাল বলে বিবেচিত হয় । তিনি বলেন ল্যাব সহকারী পদে নির্বাচিত পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে ৬ লক্ষ টাকা নিয়েছে সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক। অভিভাবক সদস্য শিপন বলেন, অফিস সহকারী নির্বাচিত পরীক্ষার্থী রুবেলের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নেওয়া হয়েছে ।

 

অভিযোগকারী কাউসার আলম বলেন, রুবেলের কাছ থেকে ১২ লক্ষ টাকা নিয়েছে আমার কাছ থেকে চাকরী দেওয়ার কথা বলে বিদ্যালয়ের সভাপতি আবুল খায়ের ও প্রধান শিক্ষক নাসিরউদ্দিন আমার কাছ থেকে আট লক্ষ টাকা নেয় চাকরী দেওয়ার কথা বলে । অন্য আরেক পরীক্ষার্থী রুবেল আমার চাইতে বেশী টাকা দিয়েছে তাই আমার চাকরী হয়নি । তারা আমার কাছ থেকে নেওয়া টাকা ফেরতও দেয়নি। তাই আমি আদালতে মামলা করেছি ।
উল্লেখ্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর নির্ধারিত তারিখে গত ২ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২টায় চাঁদপুর শহরের হাসান আলী উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিতে মোট ১৯ জন প্রার্থী আবেদন করেন। এর মধ্যে অফিস সহকারী পদে ৯ জন, কম্পিউটার ল্যাব সহকারী পদে ৪ জন, নৈশপ্রহরী পদে ৩ জন এবং পরিচ্ছন্নতাকর্মী পদে ৩ জন অংশ গ্রহন করেন ।

কিন্তু নির্ধারিত তারিখে দুপুর ২টায় নিয়োগ পরীক্ষা না নিয়ে ওই পরীক্ষা দেরিতে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠে। এ সময় নিয়োগ বোর্ডের নির্ধারিত সদস্যদের বাহিরেও ৫/৬জন বহিরাগত লোকের উপস্থিতি ছিল। এ সয়ম আর্থিক লেনদেনের বিনিময়ে নিজেদের পছন্দের লোকদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলেও ওই নিয়োগ বোর্ডের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল ।
এলাকার একাধিক ব্যক্তিরা বলেন সভাপতির সাথে যারা জড়িত তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হউক তাহলেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ নিয়ে বানিজ্য ও অনিয়ম বন্ধ হবে।


এই বিভাগের আরও খবর